দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে -ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে -ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। পূর্ব প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ৬৪ জেলায় বিতরণের জন্য ১৫ হাজার ৫শ ৫৮ মেট্রিক টন চাল এবং ১ কোটি ৪০ লাখ ৭৬ হাজার ৫শ ৪১ টাকা জেলা প্রশাসকদের নিকট মজুত আছে। বর্তমানে মহানগরসমূহে ৩২ হাজার নগর স্বেচ্ছাসেবক রয়েছে যা শীঘ্রই ৬২ হাজারে উন্নীত করা হবে। ১৩টি জেলায় ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির স্বেচ্ছাসেবকদের মাঝে সহায়ক উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে উপকূলীয় অঞ্চলে ২শ ২০টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। আরো আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ এবং বিদ্যমান আশ্রয়কেন্দ্রের সংস্কার কাজ চলমান আছে। বন্যা ও ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় মুজিব কিল্লা নির্মাণ কাজ চলমান আছে এবং ৯শ ৯৮টি বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। বললেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান।

প্রতিমন্ত্রী আজ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাম্প্রতিক দুর্যোগসমূহে করণীয় ও পূর্ব প্রস্তুতি বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদেরকে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভূমিকম্পসহ অন্যান্য দুর্যোগ পরবর্তী সময়ের জন্য ২শ ৩৬ কোটি টাকার প্রয়োজনীয় আধুনিক অনুসন্ধান-উদ্ধার সামগ্রী ও যন্ত্রপাতি ক্রয় করে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, কোস্টগার্ড, র‌্যাব, জেলা প্রশাসন ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনকে হস্তান্তর করা হয়েছে। আরো ১ হাজার কোটি টাকার সরমঞ্জাম ক্রয়ের পরিকল্পনা রয়েছে।

এনামুর রহমান বলেন, ভূমিকম্পসহ অন্যান্য দুর্যোগ পরবর্তী অবস্থা থেকে দ্রুত উত্তরণের জন্য জাতীয় আপদকালীন পরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে। সম্ভাব্য দুর্যোগ মোকাবিলার পূর্ব প্রস্তুতি ও দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস কর্মসূচির অংশ হিসেবে গ্রামীণ সড়কে নিরবছিন্ন যোগাযোগ স্থাপনে ইতোমধ্যে ১৮ হাজার সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছে। আরো ১৩ হাজার সেতু ও কালভার্ট নির্মাণের কার্যক্রম অব্যাহত আছে। এছাড়া দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস কার্যক্রমের অংশ হিসেবে গ্রামীণ মাটির রাস্তা টেকসইকরণে ইতোমধ্যে ২ হাজার ৪শ ৩৮ কিলোমিটার এইসবিবি করা হয়েছে। বজ্রপাত প্রতিরোধে এ পর্যন্ত ৩২ লাখ ১২ হাজার ৬শ ৭১টি তাল গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় পেশাদারিত্ব আনয়নের লক্ষ্যে জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনিস্টটিউট গঠন করা হয়েছে এবং এ পর্যন্ত প্রায় ২২ হাজার ৫শ জনকে বিভিন্ন দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Comment