বিএনপিনেত্রী তো দিল্লী গিয়ে গঙ্গার পানির হিস্যার কথা ভুলেই গিয়েছিলেন -তথ্যমন্ত্রী 

বিএনপিনেত্রী তো দিল্লী গিয়ে গঙ্গার পানির হিস্যার কথা ভুলেই গিয়েছিলেন -তথ্যমন্ত্রী 

‘বিএনপিনেত্রী বেগম জিয়া তো দিল্লী গিয়ে গঙ্গার পানির হিস্যার কথা বলতে ভুলেই গিয়েছিলেন’, মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক  ড. হাছান মাহমুদ।
শনিবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে ঢাকায় ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের প্রচার ও প্রকাশনা উপ কমিটির সভাশেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। দলের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনসহ প্রচার উপকমিটির সদস্যবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী বলেন, ‘যে দলের নেত্রী দিল্লী গিয়ে পানির হিস্যার কথা ভুলেই যায়, সে দল তো পানি নিয়ে কথা বলার নৈতিক অধিকারই রাখে না।’
‘বাংলাদেশ ফেনী নদীর পানি ভারতকে দিয়ে দিয়েছে’- মীর্জা ফখরুলের এমন মন্তব্যের জবাবে  ড. হাছান বলেন, ‘ভারতবিরোধিতাই হচ্ছে বিএনপি’র রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য। কোনো অবস্থাতেই ফেনী নদীর পানি দিয়ে দেয়া হয়নি। এনদীর কিছু পানি তারা পান করার জন্য আগে থেকেই ব্যবহার করে আসছিলো, আমরা বরং সেটাকে ফ্রেমওয়ার্কের মধ্যে এনেছি। নদীর পানিপ্রবাহের দুইশত ভাগের মাত্র একভাগ তারা পানীয় হিসেবে ব্যবহার করবে।’
‘সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের জন্যভবিএনপি মহাসচিবের ডাক’ প্রসঙ্গে প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট তেল ও জলের মতো ঐক্য করার চেষ্টা করেছে,  নির্বাচনেও তারা সফল হয়নি। বরং তাদের মধ্যে অবিশ্বাস, অনৈক্য আর ভাঙন ধরেছে। আমি তাদেরকে বলবো, আগে নিজেদের ঐক্য ধরে রাখার চেষ্টা করুন।’
‘আর সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে তারা কখনো জনগণের সাড়া পায়নি, কারণ, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গত সাড়ে দশ বছরে জনগণের অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছে। অন্যদিকে বিএনপি’র নেতৃত্বে মানুষকে অবরুদ্ধ করা আর জনগণের ওপর হামলার রাজনীতি হয়েছে’, বলেন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক।
এসময় সাংবাদিকবৃন্দ ‘বাংলাদেশে বুয়েট-ছাত্র আবরার নিহতের ঘটনার সময় মার্কিন সরকারের উদ্বেগ প্রকাশ এবং সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলায় দু’জন শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনা’য় মন্তব্য চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘কিছুদিন পরপরই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে  স্কুল-কলেজ, পাব-রেস্তোঁরাসহ বিভিন্ন স্থানে, বিশেষ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বন্দুকধারীদের গুলিতে এধরণের হতাহতের ঘটনা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। আমরা আশা করবো, এগুলো বন্ধ হবে।’
নবম ওয়েজবোর্ডের সুপারিশে ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমের জন্য বেতন কাঠামো গঠনকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমের জন্য ওয়েজবোর্ড হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমকর্মীদের চাকুরির সুরক্ষার জন্য একটি বেতন কাঠামো অবশ্যই প্রয়োজন। এ নিয়ে আলোচনা চলছে।’
তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এসময় দলের জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে প্রচার উপকমিটির বহুমুখী কাজ আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে শেষ হবে বলে জানান।

Leave a Comment