বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৪:০৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ :
বিজ্ঞানশিক্ষা নবম শ্রেণী পর্যন্ত বাধ্যতামূলক -প্রধানমন্ত্রী পেট্রাপোল বন্দরে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা দ্বিতীয় দিনেও আমদানি রফতানি বন্ধ দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সেবায় খাস পুকুরে উন্নয়ন -ভূমিমন্ত্রী অগ্নিনিরাপত্তা বৃদ্ধিতে সিআইডি সদর দপ্তরে মহড়া অনুষ্ঠিত জয় শ্রী রাম বলতে বলতে দিল্লির মসজিদে আগুন, মিনারে হনুমানের পতাকা মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন ঘেরাও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৮ আগামীকাল বুধবার থেকে হিজরির রজব মাস গণনা শুরু, ২২ মার্চ পবিত্র শবে মেরাজ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর উদ্বোধনীতে যেসব বিদেশি অতিথি আসছেন মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোরাবক মারা গেছেন দিল্লিতে সিএএ নিয়ে সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৭, ১৪৪ ধারা জারি

আদালতে হাজির হতে ড. ইউনূসকে সমন

নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস

গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করা হয়েছে। একইসাথে তার প্রতিষ্ঠানের আরও তিনজনকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য এ সমন জারি করেন আদালত।

আজ সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলাম তাদের বিরুদ্ধে করা ফৌজদারি মামলা আমলে নিয়ে এ সমন জারি করেন। বিচারক ৬ ফেব্রুয়ারি তাদের আদালতে হাজির হওয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

আদালতের সেরেস্তাদার জামাল উদ্দিন বলেন, নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ চারজনকে ৬ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করা হয়েছে।  শিগগিরই তাদের ঠিকানায় সমন পাঠিয়ে দেয়া হবে। এর আগে গত ৫ জানুয়ারি ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলামের আদালতে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের শ্রম পরিদর্শক (সাধারণ) তরিকুল ইসলাম ফৌজদারি এ মামলাটি করেন।

মামলায় ড. ইউনূস ছাড়াও গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা, পরিচালক আ. হাই খান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক (জিএম) গৌরি শংকরকে বিবাদী করা হয়েছে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মামলার বাদী ২০১৯ সালের ১০ অক্টোবর গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সে পরিদর্শন করতে  গিয়ে প্রতিষ্ঠানটির ১০টি বিধি লঙ্ঘনের বিষয় দেখতে পাওয়া যায়। গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের বিরুদ্ধে যেসব বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- বিধি মোতাবেক শ্রমিক/কর্মচারীদের নিয়োগপত্র, ছবিসহ পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বহি দেওয়া হয়নি, শ্রমিকের কাজের সময়ের নোটিশ পরিদর্শকের কাছ হতে অনুমোদিত নয়, কোম্পানিটি বার্ষিক ও অর্ধবার্ষিক রিটার্ন জমা দেয়নি, কর্মীদের বৎসরান্তে অর্জিত ছুটির অর্ধেক নগদায়ন করা হয় না, কোম্পানির নিয়োগবিধি মহাপরিদর্শক অনুমোদিত নয়, ক্ষতিপূরণমূলক সাপ্তাহিক ছুটি ও উৎসব ছুটি সংক্রান্ত কোনো রেকর্ড/রেজিস্টার সংরক্ষণ করা হয় না, কোম্পানির মূনাফার অংশ ৫ শতাংশ শ্রমিকের অংশগ্রহণ তহবিল গঠনসহ লভ্যাংশ বণ্টন করা হয় না, সেফটি কমিটি গঠন করা হয়নি, কর্মীদের অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করালেও কোনো ঠিকাদারি লাইসেন্স গ্রহণ করেননি এবং কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতর থেকে লাইসেন্স গ্রহণ করেনি।

ট্রেড ইউনিয়ন গঠনের কারণে গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের চাকরিচ্যুত তিন কর্মীর পৃথক তিনটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে এর আগে একই আদালত গত ৯ অক্টোবর ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন। পরে ৩ নভেম্বর ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাকিয়া পারভীনের আদালত থেকে আত্মসমর্পণ করে জামিন পান তিনি।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
IT & Technical Supported By BiswaJit